রবিবার, ডিসেম্বর ৪, ২০২২
spot_img
Homeত্বকের যত্নপ্রাকৃতিকভাবে ক্লিনজার তৈরির উপায়

প্রাকৃতিকভাবে ক্লিনজার তৈরির উপায়

ব্রণ নিয়ে আমাদের চিন্তার শেষ নেই। আর এই ব্রণের উৎপত্তি হয় অপরিষ্কার ত্বক থেকে। ত্বক অপরিষ্কার থাকলে শুধু ব্রণ নয় হতে পারে আরও নানা স্কিন সমস্যা। ত্বক পরিষ্কার করার জন্য আমরা কত না ক্রেমিক্যাল পন্য ব্যবহার করে থাকি। ক্লিনজার, ফেইস ওয়াস, সাবান ও আরোও কত কি। কিন্তু আমাদের রান্নাঘরে আছে এমন কিছু সহজলভ্য প্রাকৃতিক উপাদান যা ক্লিনজার হিসাবে দারুণ ভাল কাজ করে থাকে। প্রাকৃতিক ক্লিনজার ব্যবহারে ফেসিয়াল, ম্যাসেজিং করার প্রয়োজনীয়তা কমে যায় অনেকখানি। কিছু উপাদান আছে যা সরাসরি ব্যবহার করা যায় আবার প্যাক হিসাবে ও ব্যবহার করা যায়। আসুন তাহলে জেনে নেওয়া যাক প্রাকৃতিকভাবে ক্লিনজার তৈরির উপায় ।

প্রাকৃতিকভাবে ক্লিনজার তৈরির উপায়

১। মধু

মধু নিজেই খুব ভাল প্রাকৃতিক ক্লিনজার। কয়েক ফোটাঁ মধু হাতের তালুতে নিন, এরপর আস্তে আস্তে মুখে ঘষুন। এরপর কুসুম গরম পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। মধু সবরকম ত্বকে ব্যবহার করা যায়। আপনি যদি মধুর সাহায্যে মেকআপ তুলতে চান তবে ভেজা তোয়ালে বা তুলায় কয়েক ফোঁটা মধু নিন এবং তার সাথে সামান্য পরিমাণে বেকিং সোডা মেশান।এরপর টাওয়াল দিয়ে মেকআপ তুলে ফেলুন। ত্বকের অন্যান্য ময়লা দূর করার জন্য একটি টোনার ব্যবহার করতে পারেন। শুষ্ক ত্বকের অধিকারীরা মধুর সাথে দুধ এবং তৈলাক্ত ত্বকের জন্য দুধের পরিবর্ততে লেবুর রস ব্যবহার করতে পারেন।

২। তেল

সেই আদিকাল থেকে তেল প্রাকৃতিক ক্লিনজার হিসাবে ব্যবহৃত হয়ে আসছে। এটি শুধু ক্লিনজার হিসাবে ব্যবহৃত হয় না ত্বককে মসৃণ এবং দীপ্তিশীল করতে তেলের জুঁড়ি নেই। কয়েক ফোঁটা তেল নিয়ে বৃত্তাকার গতিতে দু হাত দিয়ে ম্যাসেজ করুন। এরপর হালকা গরম পানি দিয়ে মুখ ধুঁয়ে ফেলুন। যেকোন প্রকার তেল ব্যবহার করতে পারেন তবে অলিভ ওয়েল ব্যবহার করা বেশী ভাল।

৩। দই

প্রাকৃতিকভাবে ত্বক পরিষ্কারে টক দই অনেক ভাল একটি উপাদান। টক দই এ ল্যাকটিক অ্যাসিড উপাদান ত্বকের ভিতর থেকে ময়লা পরিষ্কার করে থাকে। এক টেবিল চামচ টক দই, দুই চামচ লেবুর রস দিয়ে একটি মিশ্রণ তৈরি করুন। মিশ্রণটি ভালভাবে মুখে ম্যসেজ করুন। ৫ মিনিট পর গরম পানি দিয়ে ধুঁয়ে ফেলুন।

৪। দুধ

কাঁচা দুধের সাহায্যে খুব সহজ়ে একটি পরিষ্কার এবং আকর্ষণীয় ত্বক পাওয়া যায়। একটি তুলার বল তৈরি করে তাতে কয়েক ফোঁটা কাচাঁ দুধ মিশিয়ে মুখে ভালভাবে ম্যাসেজ করুন। এই কাজটি তিন চার বার করুন। এরপর হালকা গরম পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন।

৫। বেসন

দুই চা চামচ বেসনের সাথে এক চা চামচ ঠান্ডা পানি দিয়ে পেষ্ট তৈরি করে নিন। পেষ্টটি এমনভাবে তৈরি করুন যাতে বেশি পাতলা বা ঘন না হয়। এটি মুখে লাগিয়ে ১০ মিনিট অপেক্ষা করুন। এরপর ঠান্ডা পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন।

৬। টমেটো

রোদ থেকে ঘরে ফিরে এক টুকরো টমেটো হতে পারে অনেক ভাল ক্লিমজার। রোদে পোড়া দাগ হতে রক্ষা পাওয়া প্রায় অসম্ভব। কিন্তু রোদ থেকে ফিরে যদি এক টুকরো টমেটো দিয়ে মুখ পরিষ্কার করা যায় তবে রোদে পোড়া দাগ ত্বকে স্থায়ী হওয়ার সম্ভাবনা অনেকাংশে কমে যায়। এক টুকরো টমেটো মুখে ভালভাবে ঘষুন। ২০ মিনিট অপেক্ষা করুন। এরপর পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

৭। মুলতানি মাটি

মুলতানি মাটির প্যাক মুখের কালো দাগ দূর করতে ব্যবহৃত হলেও এটি অনেক ভাল ক্লিনজার হিসাবেও ব্যবহার করা যায়। দুই চা চামচ মুলতানি মাটি, এক চা চামচ গোলাপ জল্‌, এবং এক চা চামচ দুধ মিশিয়ে একটি প্যাক তৈরি করুন। ১০ মিনিট মুখে রেখে শুকিয়ে গেলে ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

RELATED ARTICLES

Most Popular

Cantonment Public School and College Job Circular 2022

Dhaka University Job Circular 2022

Dhaka Wasa Job Circular 2022

Trust Bank Ltd Job Circular 2022

Recent Comments

ABUL HOSAIN on BMTF Job Circular 2022