রবিবার, ফেব্রুয়ারি ৫, ২০২৩
spot_img
Homeপ্রচ্ছদআন্তর্জাতিক অ্যাওয়ার্ড পেয়েছে বেনাপোল কাস্টম হাউস

আন্তর্জাতিক অ্যাওয়ার্ড পেয়েছে বেনাপোল কাস্টম হাউস

ধূমকেতু রিপোর্ট : আমদানি রফতানি বাণিজ্যে আধুনিকায়ন, শুল্কায়নে স্বচ্ছতা, জবাবদিহিতা, উন্নয়ন, রাজস্ব আয় বৃদ্ধি, যানজট নিরসনে বিশেষ অবদানের জন্য বিশ্বব্যাংকের আন্তর্জাতিক অ্যাওয়ার্ড পেয়েছে বেনাপোল কাস্টম হাউস।

শনিবার বিকালে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডে ওয়ার্ল্ড কাস্টমস অর্গানাইজেশন ও বিশ্বব্যাংকের বিশেষ অ্যাওয়ার্ড তুলে দেয়া হয় কাস্টমস কমিশনার বেলাল হোসেন চৌধুরীর হাতে।

স্বাধীনতা পরবর্তী ১৯৭২ সালে মুজিব-ইন্দিরা চুক্তির পর থেকে শুরু হয় বেনাপোল-পেট্রাপোল স্থলবন্দর দিয়ে ভারত-বাংলাদেশের মধ্যে আমদানি-রফতানি বাণিজ্য। ২০০৯ সাল থেকে বেড়ে যায় আমদানি-রফতানি।

৫ বছরের ব্যবধানে পাল্টে যায় বেনপোলের দৃশ্যপট। বর্তমানে বেনাপোল বন্দর দিয়ে ভারতের সঙ্গে ৩০ হাজার কোটি টাকার বাণিজ্য হয়ে থাকে।

বছরে বন্দরে একাধিক শেড, বাইপাস সড়ক নির্মাণ, বাস টার্মিনাল, ওয়েইং স্কেল, ক্রেন, ফরক্লিপ, রাসায়নিক পরীক্ষাগার স্থাপন, জমি অধিগ্রহণ অটোমেশন, রাজস্ব আয় দ্রুত বৃদ্ধি, বেনাপাস সফটওয়্যার তৈরিসহ একাধিক উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়িত হয়।

বিশেষ করে পাসপোর্ট যাত্রী হয়রানি বন্ধে বেনাপোল কাস্টমস চেকপোস্ট ও ইমিগ্রেশনকে বিমান বন্দরের আদলে যাত্রীসেবা দেয়া হচ্ছে। ফলে দুর্ভোগ ও হয়রানি কমেছে পাসপোর্ট যাত্রীদের। অন্যদিকে বেনাপোল বন্দর দিয়ে প্রথমবারের মতো রফতানি আয় বেড়েছে দ্বিগুণ।

বেনাপোল সিএন্ড এফ এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মফিজুর রহমান সজন বলেন, কাস্টমস কমিশনার অল্প সময়ে পণ্য শুল্কায়ন সহজীকরণ, আমদানি-রফতানি বাণিজ্যে গতিশীলতাসহ নতুন নতুন পদ্ধতি অবলম্বন করায় পণ্য খালাস সহজীকরণ হয়েছে।

ফলে এই অর্জন সম্ভব হয়েছে। বেনাপোল কাস্টমস কমিশনার বেলাল হোসেন চৌধুরী জানান, বন্দর ব্যবহারকারী স্টেক হোল্ডারদের সহযোগিতায় বন্দরের আধুনিকায়ন সম্ভব হয়েছে।

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular

Recent Comments

ABUL HOSAIN on BMTF Job Circular 2022